অনলাইন ই পর্চা আবেদন কিভাবে করবেন

বর্তমানে ভূমি অফিসের যে কাজগুলি করতে হয় জনগণকে অর্থাৎ ভূমি মালিকদের এখন সেই কাজগুলি প্রায় সবগুলোই অনলাইনে করা সম্ভব হয়। সকল ধরনের আবেদন এখন ভূমি অফিসের অনলাইনে করা সম্ভব হয়। ২০২২ সালের ৩০ শে সেপ্টেম্বরের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ভূমি মন্ত্রণালয়ের অনেক কিছুই পহেলা অক্টোবর থেকে অনলাইনের মাধ্যমে করা সম্ভব হচ্ছে। আর গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ভূমি মন্ত্রণালয়ের এই যুগান্তকারী সিদ্ধান্তের কারণে অনেক মানুষের অনেক দুঃখ কষ্ট লাঘব হল বলেই মনে করা হচ্ছে।

কারণ একটা সময় ছিল যখন ভূমি অফিসের যে কোন কাগজপত্রের প্রয়োজন হলে ভূমি অফিসের দরজায় দরজায় ঘুরে মানুষকে সেই কাগজ সংগ্রহ করতে হতো কিন্তু কখনো কখনো আবার সেই সকল কাগজপত্র তারা পেতেও না। কিন্তু বর্তমানে যদি আপনি ভূমি মন্ত্রণালয়ের সেই ওয়েবসাইটের গিয়ে যেকোনো ধরনের কাগজপত্রের জন্য নির্ধারিত ফর্মে আবেদন করেন তাহলে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই সামান্য মাত্রই প্রদান করে সেই কাগজপত্র আপনার হাতে চলে আসছে।

আগের মত আর ইউনিয়ন অফিস থেকে উপজেলা অফিস উপজেলা ভূমি অফিস থেকে জেলা ভূমি অফিস এভাবে করে বেড়াতে হয় না। এবং এসব কাগজপত্রের জন্য আপনাকে আলাদা কোন অর্থ দিতে হয় না। শুধুমাত্র সরকারের নির্ধারিত যে ফ্রি রয়েছে সে ফি প্রদান করার মাধ্যমে আপনি আপনার প্রয়োজনীয় কাগজপত্র গুলি আপনার হাতে পেয়ে যেতে পারেন। আজকে যারা আপনারা আমাদের এই পোস্টে এসেছেন যে ই পরতে আবেদন কিভাবে করবেন তা জানার জন্য এই বিষয়টি আপনারা অবশ্যই আমাদের এখান থেকে আজকে পেয়ে যাবেন। এবং এখান থেকে অর্থাৎ আমাদের এই পোস্ট থেকে বিস্তারিত দেখার পর আপনি অবশ্যই নিজে নিজেই আবেদন করে সেই বিষয়টি দেখে নিতে পারবেন।

এছাড়াও আপনারা যদি আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করেন তাহলে ভূমি সংক্রান্ত অন্যান্য যে বিষয়গুলি রয়েছে সে বিষয়গুলি সম্পর্কে আপনারা ধারণা নিতে পারবেন। কারণ এখন বেশিরভাগ বিষয়গুলি অনলাইনে আবেদন করার মাধ্যমে আমরা দেখে নিতে পারছি ভূমি অফিসের সবগুলি কিন্তু আপনারা যদি সেই আবেদন করতে অসমাপ্ত হন তাহলে আপনার সেই সেবা গুলি পেতে পারবেন না।

এই কারণে আপনাকে অবশ্যই এই সকল বিষয়গুলি জানতে হবে এবং ব্যবহার করা শিখতে হবে আপনার হ্যান্ডসেট থেকে কিভাবে আপনি অনলাইনে আবেদন করবেন আপনার প্রয়োজনীয় কাগজপত্রের জন্য। কারণ আমাদের বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে পরিণত করেছে এখন আমাদের জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার লক্ষ্য হচ্ছে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার। আর এই স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে অবশ্যই স্মার্ট নাগরিকের প্রয়োজন রয়েছে।

কারণ এমনি এমনি স্মার্ট বাংলাদেশ হবে না স্মার্ট নাগরিকদের কে নিয়েই হবে স্মার্ট বাংলাদেশ। তাই আপনাকে এভাবে ভার্চুয়াল জগতে সকল কিছু করার অভিজ্ঞতা রাখতে হবে এবং সেই দক্ষতা আপনাকে অর্জন করতে হবে। তাই এ সকল দক্ষতা অর্জন করার জন্য আপনি অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করে দেখে নিতে পারবেন যে কিভাবে এই সকল আবেদন গুলি করতে হয় এবং আবেদন করার জন্য কি কি প্রয়োজন রয়েছে আপনাকে কি কি তথ্য দিতে হবে এই সকল বিষয়গুলি আপনি আগেই পেয়ে যেতে পারবেন।

এখন আমরা দেখব যে ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইট থেকে কিভাবে আমরা ই পর্চার জন্য আবেদন করতে পারি। প্রথমে আমাদেরকে অবশ্যই বাংলাদেশ ভূমি মন্ত্রণালয়ের সেই www. eporcha. gov. bd ওয়েবসাইটটিতে প্রবেশ করে আপনাকে আপনার ভূমির বা জমির দাগ নম্বর আপনার নাম স্থায়ী ঠিকানা এনআইডি নম্বর এই তথ্যগুলি দেওয়ার পর আপনাকে বিভিন্ন অপশন দেখাবে অনলাইনে আবেদন করুন এবং এখানে আবেদন ট্রাকিং করুন এ ধরনের অপশন গুলির মধ্যে আপনাকে অবশ্যই অনলাইনে আবেদন করুন ক্লিক করতে হবে।

সেখানে ক্লিক করে আপনি আপনার নাম ঠিকানা জন্ম তারিখ nid নম্বর ইত্যাদি সহ বিভিন্ন তথ্য সংযুক্তিপূর্বক আপনি সেই আবেদন ফরমটি পূরণ করে সেন্ড করতে হবে। তাহলে আপনাকে অনলাইনে ই-পরজার জন্য আবেদন করা হয়ে গেল এবং এই আবেদনের সাথে সাথেই আপনাকে সরকারের নির্ধারিত নম্বরে বা নির্ধারিত ঠিকানায় আপনাকে পেমেন্ট করতে হবে অনলাইনে।