এস এ খতিয়ান অনলাইন কিভাবে পাবেন

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ভূমি মন্ত্রণালয়ের একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্তের কারণে বর্তমান ভূমির বিষয়গুলি অত্যন্ত সহজলভ্য হয়েছে। অর্থাৎ আপনি ইচ্ছা করলেই বা আপনার জানার ইচ্ছা থাকলেই আপনি ভূমি মন্ত্রণালয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আপনার সকল বিষয় সংক্রান্ত তথ্যাদি আপনি পেতে পারেন। তবে সকল তথ্যাদি পাওয়ার জন্য আপনাকে অবশ্যই প্রাথমিকভাবে কিছু তথ্য তাদেরকে শেয়ার করতে হবে বা আপনাকে জেনে যেতে হবে আপনার তথ্য প্রয়োজন হলে কোন কোন জিনিস আপনাকে শেয়ার করতে হবে তাদের সঙ্গে। বর্তমানে আপনাকে যেকোনো ক্ষতিয়ানী হোক আর এই পথটাই হোক সেটি পাওয়ার জন্য আপনাকে আর ভূমি অফিসের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াতে হবে না।

আপনি ইচ্ছা করলে আপনার ঘরে বসে আপনার ব্যবহৃত মোবাইল সেটের মাধ্যমেই এই সংক্রান্ত অর্থাৎ ভূমি সংক্রান্ত সকল বিষয় এর তথ্যগুলি আপনি পেতে পারবেন। আপনার আর এস খতিয়ান এস এ খতিয়ান সকল বিষয়গুলি এখানে দেখে নিতে পারবেন অত্যন্ত সহজ ভাবেই। আজকে আপনারা যারা আমাদের এই পোস্টে এসেছেন যে এসে খতিয়ান কি সেটি দেখার জন্য আপনারা অবশ্যই এই এসে খতিয়ান সম্পর্কে ধারণা নিতে পারবেন আমাদের এই পোস্ট থেকে।

তবে জমে জমার বা ভূমি অন্যান্য বিষয় সম্পর্কে জানতে হলে আপনাকে অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করতে হবে। কারণ আমাদের ওয়েবসাইটটিতে ভূমি সংক্রান্ত সকল বিষয় অত্যন্ত সহজ ভাবে সুন্দর ভাবে আপনাকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাই জমিজমা সংক্রান্ত সকল বিষয়গুলি আপনাকে জানতে হলে অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করতে হবে। তাহলে চলুন আমরা প্রথমে দেখে নিই যে এস এ খতিয়ান কি এবং এই এস এ খতিয়ানটি কিভাবে আপনি পেতে পারেন বা দেখতে পারেন।

এই কারণে আপনাকে এখন আর সেই সময় নষ্ট করে পয়সা খরচ করে ভূমি অফিসে গিয়ে এস এ খতিয়ান দেখতে যাওয়ার কোনই মানে হয় না। আপনার মোবাইল সেটে ইন্টারনেট সংযোগে অবশ্যই আপনি ঘরে বসেই আপনার প্রয়োজন মিটিয়ে ফেলতে পারবেন। আর এসএ খতিয়ান দেখার জন্য আপনাকে যা যা করতে হবে আজকে আমরা আমাদের এই পোস্ট থেকে আপনাকে সকল তথ্যই দিয়ে দেব। এবং আমাদের কাছে থেকে এই নেওয়া তথ্য আপনি কাজে লাগিয়ে অবশ্যই আপনার কাজটি সফলভাবে করতে পারবেন বলেই আশা করি।

তবে একটি শর্ত থাকে যে আপনাকে অবশ্যই এই মোবাইল বা আপনি ডিভাইসটি পরিচালনার ক্ষেত্রে আপনার অবশ্যই যেন প্রাথমিক কোন জ্ঞান থাকতে হবে। কারণ বাংলাদেশ সরকার বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ উন্নীত করার পর এখন বাংলাদেশকে স্মার্ট বাংলাদেশ বানানোর প্রক্রিয়া চলছে। আর এই স্মার্ট বাংলাদেশ বানানোর প্রক্রিয়াতে অবশ্যই বাংলাদেশের সকল নাগরিককে স্মার্ট নাগরিক হতে হবে। স্মার্ট নাগরিক হতে হলে আমাদেরকে অবশ্যই তথ্যপ্রযুক্তিতে সামান্য পরিমাণ জ্ঞান রাখতেই হবে।

তথ্যপ্রযুক্তিতে যদি সামান্য পরিমাণে জ্ঞান না থাকে তাহলে এখন আর সমাজে বা কোন জায়গায় তাই চলতে পারা যায় না। কারণ বর্তমান যুগ হচ্ছে তথ্যপ্রযুক্তির যুগ। এই যুগে যে দেশ যত বেশি তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারে পারদর্শী সেই দেশ তত উন্নত। এই কারণেই বাংলাদেশের প্রতিটি নাগরিককে অবশ্যই তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারে সচেষ্ট হতে হবে এবং পারদর্শী হতে হবে। তাহলে চলুন দেখা যাক কিভাবে আপনি ঘরে বসেই আপনার এস এ খতিয়ান দেখে নিতে পারেন। আবেদন করার জন্য প্রথমেই আপনাকে গুগল লিংকে গিয়ে ইপদটা লিখে গুগল করে প্রথমে লিংকে আবেদন করতে হবে। অথবা সরাসরি এই eporcha.gov.bd/khatian লিংকে ভিজিট করুন।

এই লিংকে গিয়ে প্রথমে আপনি আপনার বিভাগ তারপর নিজ জেলা নিজ উপজেলা এভাবে একে একে সিলেক্ট করে আপনাকে আপনার নিজ ইউনিয়ন এবং মৌজা সিলেক্ট করতে হবে। তারপর আপনাকে অবশ্যই জমির খতিয়ান নম্বর দাগ নম্বর আপনার নাম পিতার নাম এনআইডি নম্বর ইত্যাদি তথ্যগুলি প্রদান করলে আপনাকে অবশ্যই এস এ খতিয়ান দেখিয়ে দেবে। তাই আপনাকে যেকোন সেবা পেতে হলে এখন অবশ্যই ভূমি মন্ত্রণালয়ের এই ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আপনার প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সকল সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।