জমির খতিয়ান চেক করার নিয়ম

খতিয়ান এ পথটা সহ অনেকগুলি জমির কাগজপত্র রয়েছে যেগুলি জমির জন্য অনেক মূল্যবান সম্পদ। একটা সময় ছিল জমির খতিয়ান দেখার জন্য আপনাকে ভূমি অফিসের দরজায় গিয়ে কড়া নাড়তে হত। কিন্তু বর্তমানে 2022 সালের ৩০ শে সেপ্টেম্বর তারিখে বাংলাদেশ ভূমি মন্ত্রণালয়ের একটি যুগান্তকারী সিদ্ধান্তের ফলে এখন আর জমিজমা সংক্রান্ত যেকোনো কাগজপত্র দিয়ে দেখছে আমাদের আর ভূমি অফিসে যাওয়ার প্রয়োজন হয় না।

আমরা আমাদের বাড়িতে বসে থেকেই খতিয়ান এ পথটা সহ অন্যান্য বিষয়গুলি দেখে নিতে পারি। তাই আপনাদেরকে খতিয়ান চেক করার জন্য আর ভূমি অফিসে দৌড়াদৌড়ি করতে হবে না। আমি মন্ত্রণালয়ের সেই যুগান্তকারী সিদ্ধান্তের ফলে এখন একটি ঠিকানায় অনেক সেবা দিতে পারছে বাংলাদেশের ভূমি অফিস গুলি। এতে বাংলাদেশ যে ডিজিটাল বাংলাদেশের পরিণত হয়েছে তার সহজেই অনুমান করতে পারি।

তাই এখন আপনাকে যে কোন কাগজপত্র চেক করার জন্য দেখার জন্য আর ভূমি অফিসে যেতে হবে না বাড়িতে বসে থেকে আবেদন করে সে সম্পর্কে কাগজপত্র গুলি আপনি দেখে নিতে পারবেন। তবে এর জন্য আপনাকে কিছু তথ্য আদান-প্রদান করতে হবে। অর্থাৎ তথ্যগুলি যদি তাদেরকে না জানানো হয় বা না জানাতে পারেন তাহলে আপনি সেই ওয়েবসাইটের লিঙ্কে ঢুকতে পারবেন না বা আবেদন করতে পারবেন না।

এই কারণে আপনাকে অবশ্যই কিছু তথ্য আগে থেকে জেনে রাখতে হবে। যেমন আপনি যদি আপনার জমির দাগ নম্বর খতিয়ান নম্বর এই সকল বিষয় সম্পর্কে না জানাতে পারেন বা তথ্য না দিতে পারেন তাহলে আপনি অবশ্যই সেই জমির খতিয়ান বা জমির অনলাইনে যে সেবা প্রদান করে থাকে সেগুলি সম্পর্কে জানতে পারবেন না। তাই আপনি তথ্য দিতে না পারলে আপনাকে সেবা দান করতে পারবে না তারা।

এজন্য অনলাইনের সেবাগুলি পেতে হলে আপনাকে অবশ্যই কিছু তথ্য আগে থেকেই জেনে রাখতে হবে। খতিয়ান চেক করার জন্য আপনাকে অবশ্যই ভূমি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। আমরা সেই ওয়েবসাইটের লিংক এখন আপনাদেরকে জানিয়ে দিচ্ছি আমাদের এই পোস্ট থেকে। প্রথমে আপনাকে এই eporcha.gov.bd/khatian লিংকে গিয়ে বিভাগ সিলেক্ট করতে হবে অর্থাৎ আপনার নিজের বিভাগ সিলেক্ট করে ক্লিক করলে সেখানে আপনার সেই বিভাগের জেলাগুলি প্রদর্শিত হবে।

সেই জেলাগুলি থেকে আপনার নিজ জেলা কোনটি সেটি সিলেক্ট করে ক্লিক করবেন। তারপরে আপনার নিজ জেলার বিভিন্ন উপজেলা গুলি প্রদর্শিত হবে। তখন সেখান থেকে আপনি আপনার নিজের উপজেলা সিলেক্ট করে ক্লিক করবেন। নিজ উপজেলার যে ইউনিয়নগুলি রয়েছে সেই ইউনিয়ন গুলি আপনি সিলেক্ট করে ক্লিক করুন তাহলে বিভিন্ন মৌজাগুলি দেখতে পাবেন। তখন আপনার সেই মৌজার নাম লিখে জমির দাগ নম্বর খতিয়ান নম্বর দিয়ে সেখানে ভূমি মালিকের নাম ঠিকানা জাতীয় পরিচয় পত্র নম্বর এগুলি সব সঠিকভাবে পূরণ করলে আপনার জমির খতিয়ান কি অবস্থায় রয়েছে সেটি আপনি দেখে নিতে পারবেন।

তবে অবশ্যই এই তথ্যগুলি আপনার আগে দেওয়া তথ্যগুলির সাথে মিলে যেতে হবে তাহলেই আপনি বুঝে নিতে পারবেন আপনার জমি ঠিক রয়েছে। এছাড়া যদি তথ্যগুলি না মিলে তাহলে আপনাকে তারা বলে দেবে যে আপনি সঠিক তথ্য প্রদান করেননি বা সঠিক তথ্য দিয়ে পুনরায় প্রবেশ করুন। তাহলে আপনাকে জমির খতিয়ান দেখার জন্য অবশ্যই এই তথ্যগুলি আপনাকে প্রদান করতে হবে বা আগে থেকেই আপনাকে জেনে নিতে হবে তথ্যগুলি সম্পর্কে। তাহলে আপনি ঘরে বসেই আপনার জমির খতিয়ান কি অবস্থায় রয়েছে সেই তথ্যগুলি দেখে নিতে পারবেন।

তাই এ ধরনের জমির সকল তথ্যগুলি পেতে আপনারা অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইটটি ভিজিট করবেন। আমাদের ওয়েবসাইটটিতে জমিজমা সংক্রান্ত বিভিন্ন ধরনের বিষয় নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। তাই আপনারা যদি আমাদের সঙ্গে থাকেন তাহলে অবশ্যই সেই বিষয়গুলি সম্পর্কে সঠিকভাবে তথ্য পাবেন। এবং ওয়েবসাইটটি ভিজিট করে আমাদের সঙ্গেই থাকবেন।